রবিবার, ২৪ অক্টোবর ২০২১, ০৬:০৬ পূর্বাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম :
সাম্প্রদায়িক হামলার সবাইকে চিহ্নিত করেছি: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী রোববার পায়রা সেতু উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী ডেঙ্গুতে মৃত্যু ২, হাসপাতালে ১৮৯ মিয়ানমারের উত্তরাঞ্চলে সৈন্য সমাবেশ, গণহত্যার শঙ্কা জাতিসংঘের সরকার হিন্দু সম্প্রদায় ক্ষতিগ্রস্তদের পাশে দাঁড়িয়েছে: স্পিকার রোহিঙ্গাদের চুলের মুঠি ধরে ওপারে পাঠাতে হবে: শুভেন্দু ডাইনোসরের ১০০ ডিম খুঁজে পেলেন বিজ্ঞানীরা আসুন, জাতিসংঘকে আশার বাতিঘর বানাই: প্রধানমন্ত্রী জয় দিয়ে সুপার টুয়েলভ শুরু করতে চায় বাংলাদেশ জয় দিয়ে বিশ্বকাপ শুরু অস্ট্রেলিয়ার ২০২২ টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে সরাসরি খেলবে বাংলাদেশ অনেকবার মৃত্যুর মুখ থেকে ফিরে এসেছি: কঙ্গনা রাষ্ট্রধর্ম ইসলাম ও সংবিধানে বিসমিল্লাহ থাকবে করোনার নতুন রোগী নেই ৩৫ জেলায় কুমিল্লায় সাম্প্রদায়িক হামলার বিচার ট্রাইব্যুনালে: আইনমন্ত্রী ইকবালের বিষয়ে বিএনপি মহাসচিবের কাছে তথ্য আছে: কাদের কাপড় খুলে বিমানবালাদের প্রতিবাদ ধর্মীয় সম্প্রীতিতে বাংলাদেশ পৃথিবীর মধ্যে নাম্বার ওয়ান : পররাষ্ট্রমন্ত্রী আগামী বছর নিয়ন্ত্রণে আসতে পারে করোনা ইকবাল হোসেনের ৭ দিনের রিমান্ড মঞ্জুর

অতিরিক্ত কাজে বছরে প্রায় ২০ লাখ মানুষের মৃত্যু হয়: গবেষণা

অতিরিক্ত কাজে বছরে প্রায় ২০ লাখ মানুষের মৃত্যু হয়: গবেষণা

প্রতিবছর প্রায় ২০ লাখ মানুষ কর্ম সংক্রান্ত কারণে মারা যায়। এর মধ্য দীর্ঘক্ষণ কাজ এবং বায়ু দূষণজনিত সমস্যা সম্পৃক্ত। শুক্রবার (১৭ সেপ্টেম্বর) বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার এক গবেষণার বরাত এসব তথ্য জানিয়েছে বার্তাসংস্থা রয়টার্স।

বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (ডব্লিউএইচও) ও ইন্টারন্যাশনাল লেবার অর্গানাইজেশনের (আইএলও) গবেষণা বলছে, ২০১৬ সালে এ ধরনের গবেষণা প্রথম করা হয়। তখন দেখা গেছে, ১৯ লাখ মানুষের মৃত্যুর জন্য কাজ সংশ্লিষ্ট রোগ দায়ী।

ডব্লিউএইচও-এর মহাপরিচালক ডা. তেদ্রোস আধানোম গেব্রেয়াসুস বলেছেন, প্রকৃত অর্থেই অনেক লোক চাকরি দ্বারা হত্যা হয়।

গবেষণায় ১৯টি পেশাগত ঝুঁকির কারণ দেখানো হয়েছে। এর মধ্যে রয়েছে দীর্ঘক্ষণ কাজ বা অতিরিক্ত কাজ, কর্মক্ষেত্রে বায়ু দূষণ, হাঁপানি, কার্সিনোজেন এবং শব্দ দূষণ। দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়া এবং পশ্চিম প্রশান্ত মহাসাগর অঞ্চলের শ্রমিকদের মধ্যে ৫৪ বছরের বেশি বয়সী কর্মীদের মধ্যে কর্ম সংক্রান্ত মৃত্যুর ঘটনা ঘটেছে বলে তুলে ধরা হয়েছে প্রতিবেদনে।

ডব্লিউএইচও-এর গবেষণার উপর ভিত্তি করে আরও বলা হয়েছে, দীর্ঘক্ষণ কাজের জন্য স্ট্রোক এবং হৃদরোগের মাধ্যমে বছরে প্রায় ৭ লাখ ৪৫ হাজার মানুষ হত্যা হয়েছে।

শুক্রবার প্রকাশ হওয়া ওই গবেষণা প্রতিবেদনে আরও দেখা গেছে, কর্মক্ষেত্রে মৃত্যুর জন্য আরও একটি বড় সমস্যা হচ্ছে বায়ু দূষণ। যেমন গ্যাস এবং ধোঁয়া। এছাড়া শিল্প নির্গমনের সঙ্গে যুক্ত ক্ষুদ্র কণাও মৃত্যুর জন্য দায়ী। ২০১৬ সালে বায়ু দূষণজনিত কারণে ৪ লাখ ৫০ হাজার মানুষের মৃত্যু হয়েছে এবং ৩ লাখ ৬০ হাজার মানুষ আহত হয়েছেন বলেও তুলে ধরা হয়েছে প্রতিবেদনে।

২০০০ সাল এবং ২০১৬ সালের মধ্যে ইতিবাচক বিষয় হলো, জনসংখ্যার তুলনায় কর্ম সংক্রান্ত মৃত্যুর সংখ্যা ১৪ শতাংশ হ্রাস পেয়েছে। আর এটি সম্ভব হয়েছে কেবল কর্মক্ষেত্রের স্বাস্থ্য এবং নিরাপত্তার উন্নতির জন্য। সূত্র : রয়টার্স


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

করোনার সর্বশেষ খবর

বাংলাদেশে

আক্রান্ত
১,৫৬৭,৪১৭
সুস্থ
১,৫৩০,৯৪১
মৃত্যু
২৭,৮১৪
সূত্র: আইইডিসিআর

বিশ্বে

আক্রান্ত
২৪২,৬২৬,৯৭৪
সুস্থ
মৃত্যু
৪,৯৩৪,৭৭২
%d bloggers like this: