শুক্রবার, ০৭ মে ২০২১, ০৬:৫৯ পূর্বাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম :
খালেদা জিয়াকে যে দেশে নেওয়ার প্রস্তুতি বিস্ফোরণে গুরুতর আহত মালদ্বীপের সাবেক প্রেসিডেন্ট ফয়জী’র একাধিক নারীর সংগে অনৈতিক সম্পর্ক ছিলো শেষ কার্যদিবসে ডিএসই-তে হাজার কোটি টাকা লেনদেন এখন জনগণের পাশে থাকাই আওয়ামী লীগের রাজনীতি : ড. হাছান মাহমুদ জাতীয় অধ্যাপক হিসেবে নিয়োগ পেলেন তিনজন করোনা টিকার দ্বিতীয় ডোজ নিলেন রাষ্ট্রপতি ভারত-যুক্তরাষ্ট্র থেকে টিকা চাওয়া হয়েছে: পররাষ্ট্রমন্ত্রী ৯০০ টন অক্সিজেন মজুদ আছে : স্বাস্থ্যমন্ত্রী সরকার খালেদা জিয়াকে বিদেশে যাওয়ার অনুমতি দেবে, আশা মির্জা ফখরুলের যেখানে আছেন সেখানেই ঈদ উদযাপন করুন : প্রধানমন্ত্রী করোনায় ৪১ জনের মৃত্যু, নতুন আক্রান্ত ১,৮২২ নতুন পাসপোর্টের জন্য আবেদন খালেদা জিয়ার টিকা নিয়ে বাণিজ্য গ্রহণযোগ্য নয়: জিএম কাদের আগামীকাল জুমাতুল বিদা নামাজ শেষে সারাদেশে বিশেষ দোয়া দোষারোপের রাজনীতি পরিহার করতে বিএনপিকে আহ্বান সেতুমন্ত্রীর করোনায় দিন মজুরকে খাওয়াবেন সানি লিওন ব্রাজিলে গোলাগুলিতে পুলিশসহ নিহত ২৫ জি-সেভেনের যৌথ বিবৃতি অভিযোগ ভিত্তিহীন: চীন দক্ষভাবে করোনা মোকাবেলা করা হচ্ছে : হানিফ

‘যুব হেফাজত’ গঠন করতে চেয়েছিলেন হারুন ইজাহার

‘যুব হেফাজত’ গঠন করতে চেয়েছিলেন হারুন ইজাহার

হেফাজতে ইসলামের মধ্যে যুব হেফাজত নামে অংগ সংগঠন করতে চেয়েছিলেন সংগঠনটির বিলুপ্ত কমিটির শিক্ষা ও সংস্কৃতিবিষয়ক সম্পাদক মুফতি হারুন ইজাহার। হেফাজতের অনেকেই বলেন, এজন্য যেকোনো কর্মসূচিতে তার সমর্থকদের দিয়ে শোডাউন ও সক্ষমতা জানান দিতেন। তৈরি করেছিলেন নিজস্ব বলয়।

আল্লামা আহমদ শফীর কমিটির যুগ্ম মহাসচিব মঈনুদ্দীন রুহী জানিয়েছেন, ২০১৬ সালে যুব হেফাজত করার জন্য প্রস্তাব দিয়েছিলেন হারুন ইজাহার। এটা আমি শুনেছি। কিন্তু আল্লামা আহমদ শফী রাজি হননি। তিনি বলেছিলেন, হেফাজতের মধ্যে কোনো সহযোগী সংগঠন থাকবে না। যদি সেটা করা হয়, তাহলে রাজনৈতিক দল হয়ে যায়।

মঈনুদ্দীন রুহী অভিযোগ করেন, হেফাজতকে নিজেদের মতো করে উগ্র সংগঠন হিসেবে ব্যবহার করতে চেয়েছেন ইজাহার।

তিনি বলেন, আহমদ শফীর হুজুরের জীবদ্দশায় তাঁদের কমিটিতে রাখা হয়নি। সবাইকে তিনি বলতেন, মুফতি ইজাহারুল ইসলাম চৌধুরী ও হারুন ইজাহার থেকে হেফাজতকে দূরে রাখবে।

তবে তাঁর বাবা মুফতি ইজাহারুল ইসলাম চৌধুরী জানান, এসব কথা সম্পূর্ণ মিথ্যা এবং ষড়যন্ত্রের অংশ। তাঁর এবং তাঁর ছেলের বিষয়ে যেসব অভিযোগ আনা হয়েছে তা উদ্দেশ্য প্রনোদিত। তবে যুব হেফাজতে বিষয়ে তিনি কোনো কথা বলতে রাজি হননি।

আল্লামা আহমদ শফীর নেতৃত্বে হেফাজত প্রতিষ্ঠার সময় মুফতি ইজাহারুল ইসলাম চৌধুরীকে নায়েবে আমির করা হয়। তবে তাঁর পরিচালিত মাদ্রাসায় বোমা বিস্ফোরণের পর থেকে তাঁকে সাংগঠনিক কার্যক্রমে নিষ্ক্রিয় করে রাখা হয়। জুনায়েদ বাবুনগরীর নেতৃত্বে গত বছরের নভেম্বরে করা কমিটিতে বাবা বাদ পড়লেও ছেলে হারুন ইজাহারকে শিক্ষা ও সংস্কৃতিবিষয়ক সম্পাদক করা হয়। তিনি চট্টগ্রামের লালখান বাজারের জামিয়াতুল উলুম আল ইসলামিয়া মাদ্রাসার সহকারী পরিচালক। হারুন ইজহারের বাবা মুফতি ইজহারুল ইসলাম চৌধুরী চট্টগ্রামের ওই মাদ্রাসার পরিচালক।

হাটহাজারীতে সহিংসতার ঘটনার ‘মদদদাতা’ হিসেবে গত বুধবার রাতে ওই মাদ্রাসা থেকেই হারুন ইজহারকে গ্রেপ্তার করে র‌্যাব। সোমবার (৩ মে) সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট মোহাম্মদ হেলাল উদ্দিন তাঁর ৯ দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেছেন।

হারুন ইজাহার ঢাকার শাপলা চত্বরের ঘটনাসহ বিভিন্ন অভিযোগে করা মোট ১৮টি মামলার আসামি। ২০১৩ সালের ১০ জুলাই লালখান বাজার মাদ্রাসায় বিস্ফোরণের ঘটনার পর হারুনকে গ্রেফতার করা হয়েছিলো। ওই ঘটনায় তিনজন নিহত হন।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

করোনার সর্বশেষ খবর

বাংলাদেশে

আক্রান্ত
৭৬৯,১৬০
সুস্থ
৭০২,১৬৩
মৃত্যু
১১,৭৯৬
সূত্র: আইইডিসিআর

বিশ্বে

আক্রান্ত
১৫৪,৯৭২,১১২
সুস্থ
৯১,৫৯৯,৫০২
মৃত্যু
৩,২৩৯,৪২৪
%d bloggers like this: