সোমবার, ২০ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০১:২২ পূর্বাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম :
দেশে আরও ২৪১ ডেঙ্গু রোগী হাসপাতালে ভর্তি দেশে করোনায় শনাক্ত নামল ছয় শতাংশের নিচে দুর্নীতিবাজদের বিরুদ্ধে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নিতে দুদকের প্রতি আহ্বান শেষ ম্যাচে বাংলাদেশকে হারালো আফগানিস্তান ‘স্কুল-কলেজে সংক্রমণের আশংকা নেই’ বিদেশেও দেশের ভাবমূর্তি নষ্ট করছে বিএনপি- কাদের ফিনল্যান্ড থেকে নিউইয়র্কের উদ্দেশে রওনা দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী যে দেশে বেকারত্বের রেকর্ড সর্বনিম্ন ফখরুলসহ ৫১ জনের বিরুদ্ধে অভিযোগ গঠনের শুনানি ২১ নভেম্বর নির্দিষ্ট গোষ্ঠী আমাদের হুমকি দিয়েছিল: ডেভিড হোয়াইট তৃণমূলের নেতাকর্মীরা আওয়ামী লীগের প্রাণ : তথ্যমন্ত্রী সরকার খালেদা জিয়াকে ভয় পায় : মির্জা ফখরুল বাংলাদেশ চাইলে নির্বাচন প্রক্রিয়ায় সহযোগিতা করবে জাতিসংঘ রাসেল দম্পতির বিরুদ্ধে ধানমন্ডি থানায় মামলা নিরঙ্কুশ সংখ্যাগরিষ্ঠতার আশায় মধ্যবর্তী নির্বাচনে ট্রুডো বিশ্বে করোনায় মৃত্যু ৪৭ লাখ ছাড়ালো অতিরিক্ত কাজে বছরে প্রায় ২০ লাখ মানুষের মৃত্যু হয়: গবেষণা জাতীয় পার্টির ভাইস চেয়ারম্যান হলেন শাফিন আহমেদ সৌদি প্রবেশে বাংলাদেশের ১৩৭ পণ্যের শুল্কমুক্ত সুবিধা দাবি প্রথমবার মহাকাশ ঘুরে এলেন চার সাধারণ নভোচারী

যেভাবে বুঝবেন ডেঙ্গু নাকি করোনা

যেভাবে বুঝবেন ডেঙ্গু নাকি করোনা

করোনায় নাজেহাল দেশ। এর মধ্যেই দিন দিন বেড়ে চলেছে ডেঙ্গুর ভয়াবহতা। প্রতিদিনই হাসপাতালে বাড়ছে ডেঙ্গু আক্রান্ত রোগীর ভিড়। ডেঙ্গু ও করোনার উপসর্গ অনেকটা একইরকম হওয়ায় অনেকেই নিজে বা আপনজনেরা জ্বরে আক্রান্ত হলে ডেঙ্গু নাকি করোনা তা সঠিকভাবে বোঝা মুশকিল হয়ে যাচ্ছে। ফলে সঠিক রোগ নির্ণয় এবং চিকিৎসায়ও চ্যালেঞ্জ দেখা দিচ্ছে। কারণ ডেঙ্গু ও করোনার কো-ইনফেকশনের ঘটনাও ঘটছে।

ন্যাশনাল সেন্টার অফ বায়োটেকনোলজি ইনফরমেশানে প্রকাশিত এক রিপোর্টে দেখা গেছে, করোনা ও ডেঙ্গুর ক্ষেত্রে একই ধরনের লক্ষণ দেখা গেছে। আবার করোনা, ডেঙ্গু ও ম্যালেরিয়ার লক্ষণগুলো একটি অন্যটির সঙ্গে জড়িয়ে থাকে। যে কারণে রোগ নির্ণয় করা মুশকিল হয়ে যাচ্ছে। এতে চিকিৎসার ক্ষেত্রে সমস্যা দেখা দিচ্ছে।

বিশেষজ্ঞ এবং চিকিৎসকরা বলছেন, করোনা ও ডেঙ্গু রোগগুলোর লক্ষণ প্রায় একইরকম। যেমন ডায়রিয়া, বমি, মাথা ব্যথা, জ্বর, গাঁটে ব্যথা। দুটো রোগেই উচ্চ তাপমাত্রার জ্বর হয়। তবে করোনায় ফ্লু এর উপসর্গ বেশি থাকে। যেমন, নাক দিয়ে সর্দি বের হওয়া, কাশি, গলাব্যাথা, সর্দি, শ্বাসকষ্ট, গন্ধ না পাওয়া, পেটে ব্যাথা, বমি এবং ডায়রিয়া। কো- ইনফেকশন প্রতিরোধে জোর দিচ্ছেন বিশেষজ্ঞরা। এতে রোগী শনাক্ত করা সহজ হবে। ফলে চিকিৎসা দেওয়াও সহজ হবে। এতে ভুল চিকিৎসার ফলে মৃত্যুর ঝুঁকিও কমবে।

অন্যদিকে হঠাৎ করেই বেশি জ্বর, বমি, শরীরে প্রচণ্ড ব্যথা, গা গোলানো, র‌্যাশ ইত্যাদি ডেঙ্গুর সাধারণ লক্ষণ। চোখের ভেতর ব্যথা, ঠান্ডা লাগা, অ্যাকিউট জয়েন্ট পেইনের মতো সমস্যা চিকনগুনিয়ার লক্ষণ হিসেবে বিবেচিত হয়।

এই সময়ে সচেতন থাকার কোন বিকল্প নেই। কিছু সতর্কতা মাথায় রাখতে হবে। যেমন দুই থেকে তিন দিনের ভেতরেও জ্বর না কমল দ্রুত চিকিৎসকের পরামর্শ নিতে হবে। মাথাব্যথা, র‌্যাশ, ঠান্ডা লাগা, মাইলেজিয়ার মতো লক্ষণ থাকলে সতর্ক হওয়া জরুরি। ডেঙ্গু ও ম্যালেরিয়ার কারণে দেখা দিতে পারে এই লক্ষণগুলো। বয়স্ক ব্যক্তি এবং শিশুদের মধ্যে এই লক্ষণগুলো দেখা দিলে দ্রুত চিকিৎসকের শরণাপন্ন হওয়া জরুরি।

চিকিৎসকের পরামর্শ না নিয়ে বা অন্য কারও পরামর্শ শুনে সেই অনুযায়ী ওষুধ খাওয়া একেবারেই উচিৎ নয়। প্রথমে রোগ নির্ণয় এবং এরপর বিশেষজ্ঞের পরামর্শ নিয়ে তবেই ওষুধ খেতে হবে। নিজে থেকে কোনো ওষুধ খাওয়া যাবে না।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

করোনার সর্বশেষ খবর

বাংলাদেশে

আক্রান্ত
১,৫৪২,৬৮৩
সুস্থ
১,৫০১,৫৪১
মৃত্যু
২৭,২২৫
সূত্র: আইইডিসিআর

বিশ্বে

আক্রান্ত
২২৭,৮৬৫,৮৭৪
সুস্থ
মৃত্যু
৪,৬৮২,৯০৮
%d bloggers like this: